জানা-অজানা

ডাক্তারের হাতের লেখা খারাপ ॥ বছরে ৭ হাজার রোগীর মৃত্যু

ডাক্তারদের খারাপ হাতের লেখার জন্য বছরে মারা যান অন্তত ৭ হাজার রোগি।

screenshot_7

চিকিৎসকের ভুলের কারণে বছরে সাত হাজার রোগী মারা যায়। ওষুধ দিতে ভুল নয়, হাতের লেখার কারণে ঘটছে এ বিপত্তে। যুক্তরাষ্ট্রের ইনস্টিটিউট অব মেডিসিন (আইওএম) এর চালানো এক গবেষণা থেকে প্রতিবেদন থেকে, প্রতি বছর সারা বিশ্বে অন্তত ৭০০০ রোগীর মারা যায় কেবল প্রেসক্রিপশনে ডাক্তারদের হাতের লেখা বুঝতে না পারায়।

গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রেসক্রিপশনে ডাক্তারদের হাতের লেখা খারাপ হওয়ার পরিণাম যে এত মারাত্মক হতে পারে তা বোঝা যায়নি। ডাক্তাররা রোগীদের প্রতি যে নির্দেশ দেন প্রায়ই বুঝতে ভুল করেন রোগীরা। ডাক্তারদের হাতের লেখা খারাপ হওয়ার কারণে এই নির্দেশিকা বুঝতে ভুল করেন রোগীরা। যে ওষুধ দিনে দুবার খাওয়ার কথা ভুলে তা সপ্তাহে দুবার খেয়ে বসেন। কিংবা সকালের ওষুধটি খান রাতে। ফলেই ঘটে বিপত্তি।

গবেষণা অনুযায়ী, প্রতি বছর শুধু যুক্তরাষ্ট্রে প্রায় ১৫ লাখ রোগী অসুস্থ হন প্রেসক্রিপশন ঘটিত বিভ্রান্তির কারণে। আর সারা বিশ্বে ৭ হাজার মানুষ মারা যান প্রেসক্রিপশন বুঝতে না পেরে।

আইওএম এর বক্তব্য, ওষুধের দোকানের কর্মীরাও অনেক সময়ে প্রেসক্রিপশনের লেখা বুঝতে ভুল করে থাকেন। ডাক্তার প্রেসক্রিপশনে লিখেছেন সেলেক্স। আর ওষুধের দোকানদার তাকে সেলেব্রেক্সা (আর্থারাইটিসের ওষুধ) দিয়ে দিলেন। ফলে সুস্থ হওয়ার বদলে আরও অসুস্থ হয়ে পড়েন।

এই সমস্যার সমাধানে যুক্তরাষ্ট্রে ‘নেপসি’ নামের একটি প্রোগ্রাম চালু করা হচ্ছে। এই প্রোগ্রামের সাহায্যে ডাক্তাররা হাতে লেখার পরিবর্তে ইলেক্ট্রনিক প্রেসক্রিপশন লেখার সুবিধা পাবেন। ফলে হাতের লেখার সমস্যা আর থাকছে না।

নতুন নতুন সব চাকরির খবর পেতে আমাদের ফেসবুক পেজ 'নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি' লাইক দিয়ে সাথেই থাকুন!

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সর্বোচ্চ পঠিত

To Top